নগরবাসীর উপর ট্যাক্সের বোঝা চাপানো অমানবিক

রংপুর সিটি কর্পোরেশন রংপুরবাসীর দীর্ঘদিনের লড়াই সংগ্রামের ফসল। বহুল প্রতীক্ষিত এই সিটি কর্পোরেশনকে ঘিরে নগরবাসীর অনেক প্রত্যাশা ও স্বপ্ন ছিল। রংপুর সিটি কর্পোরেশন যাত্রার আড়াই বছরে নাগরিক সেবার মান বাড়েনি কিন্তু প্রতিনিয়ত বাড়ছে কর-ট্যাক্সের বোঝা। লাগামহীন কর-ট্যাক্স বৃদ্ধির ফলে সাধারণ মানুষের জীবন দুঃসহ হয়ে উঠেছে। সিটি কর্পোরেশনের বির্স্তীণ এলাকায় উন্নয়নের ছোয়া লাগেনি, নাগরিক সুবিধা কী তারা জানেনা। নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধি না করে এভাবে কর-ট্যাক্সের বোঝা চাপানো অমানবিক। নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের কর্মকান্ডে মানুষ হতাশ ও বিক্ষুব্ধ।

গতকাল ০৪ আগস্ট মঙ্গলবার বিকেল ৫টায় বাসদ (মার্কসবাদী) রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে মতবিনিময় সভায় নাগরিক নেতৃবৃন্দ একথাগুলো বলেন। বাসদ (মার্কসবাদী) রংপুর জেলা শাখার সমন্বয়ক কমরেড আনোয়ার হোসেন বাবলু’র সভাপতিত্বে এবং জেলা সদস্য পলাশ কান্তি নাগের পরিচালনায় মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, কারমাইকেল কলেজের সাবেক উপাধ্যক্ষ সাহারা ফেরদৌস, অধ্যাপক আব্দুস সোবহান, মুক্তিযোদ্ধা মোজাফ্ফর হোসেন চাঁদ, মুক্তিযোদ্ধা আকবর হোসেন, ডা. মফিজুল ইসলাম মান্টু, শিক্ষক বনমালি পাল, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ডা. তুহিন ওয়াদুদ, বিশিষ্ট সমাজ সেবক খন্দকার ফখরুল আনাম বেন্জু, সাংস্কৃকতি কর্মী জি এম নজু, ব্যবসায়ী আব্দুল লতিফ সরকার, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের জেলা সভাপতি আহসানুল আরেফিন তিতু, বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্র রংপুর জেলা সাধারণ সম্পাদক নাজমুন লিপি প্রমুখ।

নাগরিক নেতৃবৃন্দ বলেন, রংপুর সিটি কর্পোরেশনে সীমাহীন অনিয়ম, দূর্নীতি ও লুটপাট চলছে। সেক্ষেত্রে নাগরিক হিসেবে আমরা নীরব দর্শকের ভূমিকায় থাকতে পারিনা। এখানকার নাগরিক সেবার ব্যয় যেমন- নাগরিক ও চারিত্রিক সনদপত্র পৌরসভা থাকাকালীন ছিল ৫ টাকা, কিন্তু এখন তা ২০ টাকা। জন্ম-মৃত্যু নিবন্ধন সনদ ছিল ১০ টাকা এখন ৭০ টাকা, ভূমি জরিপ ফি ছিল ৫০০ টাকা এখন তা ৩,৫০০ টাকা, ওয়ারিশন সনদ ছিল ৫০ টাকা এখন ২৫০ টাকা এভাবে বাড়ছে ফি। বাণিজ্যিক ট্রেড লাইসেন্স ভূমি ট্যাক্স এবং পানির বিল ইত্যাদিও আগের তুলনায় অনেক বেড়েছে। এডিপি, এমজিএসপি, জাইকার কোটি কোটি টাকার উন্নয়ন বরাদ্দ লুটপাট হচ্ছে। নগরীর প্রাণকেন্দ্রের রাস্তাঘাট, ড্রেন-কালভার্ট ইত্যাদির সংষ্কার হয়নি, বিস্তীর্ণ এলাকা তো অনেক পরের কথা। সম্প্রতি কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগেও অনিয়ম স্বজনপ্রীতি হয়েছে ব্যাপকভাবে।

নাগরিক নেতৃবৃন্দ, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতে এবং অনিয়ম-দূর্নীতি-লুটপাট বন্ধে সর্বস্তরের নাগরিকদের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান।

***পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।***

***পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।***

Content Protection by DMCA.com

আপনার জন্য আরো কিছু খবর...