- বিজ্ঞাপন -
24.7 C
Pirganj
হোমবাংলাদেশবুড়িমারীর সঙ্গে সারাদেশে ট্রেন যোগাযোগ চালু হল প্রায় ১৭ দিন পর

বুড়িমারীর সঙ্গে সারাদেশে ট্রেন যোগাযোগ চালু হল প্রায় ১৭ দিন পর

- বিজ্ঞাপন -

প্রায় ১৭ দিন বন্ধের পর মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) সকাল থেকে বুড়িমারীর সঙ্গে সারাদেশে ট্রেন যোগাযোগ চালু হল। বন্যায় ১২ আগস্ট ওই রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। লালমনিরহাট বিভাগীয় রেলওয়ে কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বুড়িমারী-লালমনিরহাট-কাউনিয়া-সান্তাহার ও বুড়িমারী-লালমনিরহাট-রংপুর-পার্বতীপুরগামীসহ মোট চার জোড়া ট্রেন এই রুটে প্রতিদিন চলাচল করতো।

বন্যায় পানির প্রবল স্রোতে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় গত ১২ আগস্ট থেকে এ রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল। লালমনিরহাট বিভাগীয় রেলওয়ে দফতর বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বিভিন্ন রেললাইন মেরামত করে দুদিন পর লালমনিরহাট- ভোটমারী পর্যন্ত ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করতে পারলেও হাতীবান্ধা রেলওয়ে স্টেশনের সামনে ১১০ ফুট লম্বা ও ২৩-১৫ ফুট গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় বুড়িমারী স্থলবন্দর রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত ট্রেন চালানো সম্ভব হয়নি। তবে দ্রুত অস্থায়ী ভিত্তিতে মেরামত করে মঙ্গলবার বুড়িমারী রেলওয়ে স্টেশনের সঙ্গে সারাদেশের ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে। এতে ঈদ যাত্রায় দেশের বিভিন্ন এলাকায় গমনকারী যাত্রীদের সুবিধা নিশ্চিত করা হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: রংপুরের পীরগঞ্জে এক ভ্যানচালককে হত্যা করেছে অজ্ঞাত হামলাকারীরা

ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় স্থানীয় লোকজনের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিয়েছিল। এখন ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হওয়ায় স্থানীয় লোকজন খুশি। লালমনিরহাট-বুড়িমারী রুটে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় হাজার হাজার যাত্রী ভোগান্তিতে পড়েছিল।

লালমনিরহাটের রেলওয়ের সহকারী ট্রাফিক সুপারিনটেন্ডেন্ট (এটিএস) জানান, লালমনিরহাট বুড়িমারী রেল রুটের অনেক স্থানে রেল লাইনের উপর দিয়ে বন্যার পানি প্রবাহিত হয়ে লাইনের নিচের মাটি সরে গিয়ে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়। বিশেষ করে হাতিবান্ধা মেডিকেল মোড় এলাকায় রেল লাইনে প্রায় একশ মিটার দীর্ঘ লাইনের মাটি ধসে গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় এ রুটে রেল যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। পানি কমতে শুরু করলে স্থানীয়রা প্রথমে স্বেচ্ছাশ্রমে রেল লাইনের নিচের গর্ত ভরাটের কাজ শুরু করেন। পরে লালমনিরহাট রেলওয়ে প্রকৌশল বিভাগ রেল লাইন মেরামত করতে সক্ষম হয়।

লালমনিরহাট বিভাগীয় রেলওয়ে ম্যানেজার (ডিআরএম) নাজমুল ইসলাম বলেন, ‘ঈদকে সামনে রেখে হাতীবান্ধা রেলওয়ে স্টেশনের কাছে বন্যায় ভেঙে যাওয়া স্থানে দ্রুত পাইলিং করে অস্থায়ী ভিত্তিতে একটি ব্রিজ স্থাপনের মাধ্যমে লালমনিরহাট-বুড়িমারী রেলওয়ে সেকশনে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে।’

বুড়িমারীর সঙ্গে সারাদেশে এই রুটে প্রতিদিন চার জোড়া ট্রেন চলাচল করে থাকে। মঙ্গলবার থেকে এসব ট্রেন ওই রুটে চলাচল করা শুরু করেছে। ফলে কোনও যাত্রী ঈদে বাড়ি ফেরার ভোগান্তিতে পড়বে না বলে আশা করছে বিভাগীয় রেল কর্তৃপক্ষ।

***পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।***

Content Protection by DMCA.com
- বিজ্ঞাপন -
- বিজ্ঞাপন -

সর্বশেষ

আরো খবর

- বিজ্ঞাপন -