পীরগঞ্জে বাশিস শাখার ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন

রংপুরের পীরগঞ্জে বাশিস শাখার ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে শুরু হওয়া নির্বাচন বিকাল ৩টা পর্যন্ত চলে। নির্বাচনে পীরগঞ্জ কছিমন নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলাম মান্নু সাড়ে ৩’শ ভোটের ব্যবধানে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ৬৭৪। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন কুমেদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু আজাদ বাবলু।

তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দী কানঞ্চবাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান রাজুর ভোট সংখ্যা ৩২৪, সহ-সভাপতি পদে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করলেও বালুয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাদেকুল ইসলাম সর্বোচ্চ- ৬৬২ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। অপর ২ জন নির্বাচিত প্রার্থীরা হলেন, কালসারডারা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান ৬৩৮ ভোট ও লালদিঘী গালস একাডেমির প্রধান শিক্ষক আবু ইমাম মো. রাশেদুন্নবী তালুকদার ৫৬৬ ভোট। তাদের নিকটতম প্রতিদ্বন্দি হরিনা বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হেলালুর রহমান ৪৩৮ ভোট ও বড় আলমপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মকবুল হোসেন ৩০৬ ভোট।

যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করলেও হাতিবান্ধা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মাহমুদুন্নবী রাজু ৫৭১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন, অপর বিজয়ী প্রার্থী রায়পুর বালিকা বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক খায়রুল ইসলাম ৫৩৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাদের একমাত্র নিকটতম প্রতিদ্বন্দি নীলদরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সৈয়দ আজমল হুদা মিঠু ভোট ৫১৬।

সাংগঠনিক সম্পাদক পদে পত্নীচড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শহিদুল ইসলাম ৫৪৭ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী চম্পাগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মূরলী চন্দ্র বর্মন ৪২৯ ভোট পেয়েছেন। কোষাধ্যক্ষ পদে শ্যামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শফিকুল ইসলাম ৫৫৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী বঙ্গবন্ধু উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল জলিল মিয়া ৪০৭ ভোট পেয়েছেন।

সমাজ কল্যাণ সম্পাদক পদে টুকুরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) আব্দুল মান্নান মন্ডল ৫৩৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বড় দরগাহ শাহ্ ইসমাইল গাজী (র:) নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মীর শাফিয়ার রহমান লাভলু ৪৫২ ভোট পান।

এছাড়া বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় যারা নির্বাচিত হয়েছেন তারা হলেন, সাধারণ সম্পাদক পদে কুমেদপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু আজাদ বাবলু, প্রচার সম্পাদক পদে ভেন্ডাবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ইয়াকুব আলী, দপ্তর সম্পাদক জাফরপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আবু শহীদ মো. গোলাম রসুল, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক শানেরহাট কে.জে ইসলাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জুয়েল চন্দ্র মহন্ত ও মহিলা সম্পাদিকা পদে খেদমতপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা শাহিনুর আক্তার বানু নাজমা।

নির্বাচনে উপজেলার মাধ্যমিক, নিম্ন মাধ্যমিক, এমপিও, নন-এমপিওসহ মোট- ৯৪টি বিদ্যালয়ের ১০৬০ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের কথা থাকলেও নির্বাচনে ১০০৩ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং অফিসার ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল মমিন মন্ডল, প্রধান নির্বাচন কমিশনার দায়িত্ব পালন করেন বাজিতপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহফুজার রহমান খাঁন, সহকারী নির্বাচন কমিশনার ছিলেন নীলদরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সৈয়দ মশিউর রহমান ও ভীমশহর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসাদুল্যাহেল গালেব।

আরও পড়তে পারেন: পীরগঞ্জে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা, ৮০ হাজার টাকায় লাশের দফারফা!

***পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।***

Content Protection by DMCA.com

আরও পড়ুন...