পীরগঞ্জের চৈত্রকোল ইউনিয়নে ৮ শত একর আমন ক্ষেত পানির নিচে

বিজ্ঞাপন

রংপুরের পীরগঞ্জের করতোয়া নদীতে উজান থেকে নেমে আসা পানি বৃদ্ধি হওয়ায় উপজেলার চৈত্রকোল ইউনিয়নে সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি ঘটেছে। অত্র ইউনিয়নের প্রায় ৮ শত একর কৃষকের আমন ধানের জমি বন্যার ৬ষ্ঠ দিনেও পানির নিচে তলিয়ে আছে।

গত শনিবার উপজেলার চৈত্রকোল ইউনিয়নে পরিদর্শনে গিয়ে দেখা যায়-বন্যার ৬ষ্ঠ দিন অতিবাহিত হলেও অত্র ইউনিয়নের খালিশা মিশন, খাসতালুক, বাসুদেবপুর, অনন্তরাম পুর জলাইডাঙ্গা সহ চৈত্রকোল বিল এলাকার প্রায় ১৪টি গ্রামের কৃষকদের শত শত আমন ধানের জমি এখনো ২ থেকে ৩ ফুট পানির নিচে তলিয়ে আছে। ফলে শত শত কৃষক দিশেহারা হয়ে পড়েছে।

বিজ্ঞাপন

অনন্তরাম পুরের কৃষক জয়নাল মিয়া, কদম আলী, শামিম মিয়া, বাসুদেবপুরের নিশিনাথ চন্দ্র ও কুদ্দুস মিয়া, খালিশা মিশনের আগাস্টাইন এবং মাইকেল এর সাথে কথা হলে তারা বলেন – পার্শ্ববর্তী করতোয়া নদীতে উজান থেকে নেমে আসা পানি বৃদ্ধি হয়ে সেই পানি বিলে প্রবেশ করায় তাদের আমন ধানের ক্ষেত পুনরায় নতুন করে আবারও প্লাবিত হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: পীরগঞ্জের ওসি সরেস চন্দ্র, একজন সফল পুলিশ কর্মকর্তার প্রতিচ্ছবি – বেলায়েত হোসেন

৬ দিন যাবত এ সমস্ত ধান ক্ষেত পানির নিচে থাকায় পঁচে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তারা আরও জানান শত শত একর আবাদী জমির ধান ক্ষেত বন্যায় পানির নিচে থাকলেও উপজেলা কৃষি অফিসার সহ মাঠ পর্যায়ের কোন কর্মকর্তাকে পাশে পায়নি।

এ ব্যাপারে ওই ইউনিয়নের দায়িত্বরত কৃষি কর্মকর্তা কাশমিরা বেগম এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, “আমি প্রায় ক্ষতিগ্রস্ত ৫শত একর আমন ধানের ক্ষেতের তালিকা উপজেলা কৃষি অফিসে জমা দিয়েছি। অনুরুপ অভিযোগ একই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান সবুজের।

কাশমিরা বেগম জানান, বন্যায় তার ইউনিয়নের প্রায় ৮শত পাঁচ একর আমন ধানের জমি পানির নিচে তলিয়ে আছে। এছাড়া প্রায় ২শত অসহায় পরিবারের কাঁচা ঘরবাড়ি ভেঙ্গে পড়েছে। ইতোমধ্যে এর তালিকাও জমা করেছেন তিনি।

অপরদিকে এ বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার ছাদেকুজ্জামান এর সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযেগের চেষ্টা করা হলেও বেলা ২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ফোনটি খেলা পাওয়া যায়নি। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের অভিযোগ, সংশ্লিষ্ট দপ্তরের অফিসার ও মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তারা সঠিকভাবে কখনোই মাঠ পর্যায়ে কৃষদের কাছে আসে না। তারা অফিসে বসেই দ্বায়সারাভাবে দায়িত্ব পালন করছে। ফলে প্রকৃত কৃষকরা বরাবরই সরকারি প্রনোদনাসহ সকল সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়ে আসছে।

বিজ্ঞাপন

***পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।***

Content Protection by DMCA.com