- বিজ্ঞাপন -
33.4 C
Pirganj
হোমসমগ্র পীরগঞ্জনির্বাচনে দাড়ানোর মূল উদ্দেশ্য গণতন্ত্র রক্ষা করা - সহিদুল ইসলাম সেবু

নির্বাচনে দাড়ানোর মূল উদ্দেশ্য গণতন্ত্র রক্ষা করা – সহিদুল ইসলাম সেবু

- বিজ্ঞাপন -

আগামী ৭ আগস্ট নবগঠিত পীরগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এতে মেয়র পদে লড়ছেন ৪ জন প্রার্থী। মেয়র ও কাউন্সিলর পদ প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণা, জনসংযোগে এই কয়দিন বেশ ব্যস্ত ছিলেন। এই ব্যস্ততার মাঝেও আমরা চেষ্টা করেছি তাদের প্রত্যেকের সাক্ষাৎকার নেওয়ার। যারা এই শত ব্যস্ততার মাঝেও আমাদের টিমকে সময় দিতে পেরেছেন তাদের প্রত্যেকের সাক্ষাৎকার আজ সারাদিন ছাপা হচ্ছে আমাদের নিউজ পোর্টালে।

বিএনপি থেকে ধানের শীষ প্রতীকে মনোনয়ন পেয়েছেন উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সহিদুল ইসলাম সেবু, পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর টিমকে দেওয়া তাঁর সাক্ষাৎকারটি প্রকাশ করা হল।

প্রার্থীর সংক্ষিপ্ত পরিচয়:

চিত্র: ধানের শীষ

প্রার্থীর পূর্ণ নাম – মো. সহিদুল ইসলাম মন্ডল (সেবু)
পিতার নাম – মো. আব্দুর রহমান মন্ডল
মাতার নাম – মোছা. সেফাতুননেছা
জন্ম তারিখ – ০১ জুন ১৯৭৭ খ্রি.
ঠিকানা – গ্রাম – ওসমানপুর, ডাকঘর – পীরগঞ্জ
শিক্ষাগত যোগ্যতা – MSS
পেশা – শিক্ষকতা
যে প্রতিষ্ঠানে কর্মরত – পীরগঞ্জ আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়
যে ওয়ার্ডের বাসিন্দা – ০৭
প্রতীক – ধানের শীষ

পীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের সকল খবর পড়ুন

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: আপনার নির্বাচনে দাড়ানোর উদ্দেশ্য কী?

সহিদুল ইসলাম সেবু: নির্বাচনে দাড়ানোর মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে গণতন্ত্র রক্ষা করা। এই ফ্যাসিস্ট আওয়ামীলীগ সরকার যেভাবে এককভাবে বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় নির্বাচিত হচ্ছে সেভাবে যেন তারা বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় নির্বাচিত হতে না পারে সেজন্যই বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি আমাকে মনোনীত ক্যান্ডিডেট হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: নির্বাচিত হলে এলাকার উন্নয়নে কী কী করবেন?

 সহিদুল ইসলাম সেবু: প্রথম যেটা করতে হবে সেটা হচ্ছে এলাকাকে মাদকমুক্ত ঘোষণা করতে হবে। এরপর রাস্তাঘাটের উন্নয়ণ করতে হবে এবং কল কারখানা গড়ে তুলতে হবে।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: কী রকম সাড়া পাচ্ছেন জনগণের কাছ থেকে?

সহিদুল ইসলাম সেবু: ব্যপক সাড়া পাচ্ছি।

জনসংযোগে মেয়র পদপ্রার্থী সহিদুল ইসলাম সেবু
জনসংযোগে মেয়র পদপ্রার্থী সহিদুল ইসলাম সেবু

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পীরগঞ্জ পৌরসভাকে ডিজিটালাইজড করতে কী রকম পদক্ষেপ নিবেন?

সহিদুল ইসলাম সেবু: বিশ্ব সব জায়গায় মোটামুটি ডিজিটালাইজড হয়ে গেছে। সে হিসেবে বাংলাদেশ পিছিয়ে পড়বে এমন ভাবার অবকাশ নাই। বাংলাদেশ সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার বিপক্ষে আমি নই। আমিও চাই দেশ ডিজিটালাইজড হোক, আমাদের পৌরসভা ডিজিটালাইজড হোক। আমি যদি নির্বাচিত হই ‍পীরগঞ্জকে ডিজিটালাইজড করতে সব রকম পদক্ষেপ নিবো।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পৌর কর কিভাবে নির্ণয় করবেন?

সহিদুল ইসলাম সেবু: পৌর কর নির্ণয়ের ক্ষেত্রে প্রথমে লোকজনকে ক্ল্যাসিফিকেশন করতে হবে। লোকজনের আয়, তার বাৎসরিক ইনকাম এটার উপর নির্ভর করে পৌর কর নির্ধারণ করবো। গড় করে কোন পৌর কর নির্ধারণ করা হবে না।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পৌর করের নামে কি আবার কোন অতিরিক্ত অর্থ আদায় করা হবে?

সহিদুল ইসলাম সেবু: না, অতিরিক্ত কোন অর্থ আদায় করা হবে না।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: বেকার সমস্যা সমাধানে কী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন?

সহিদুল ইসলাম সেবু: এই সরকারের স্লোগান ছিল যে ঘরে ঘরে চাকরি দিবে কিন্তু তারা এটা করতে ব্যর্থ হয়েছে। বেকার সমস্যা সমাধানে যেটা করতে হবে তা হলো বেকারদের বিভিন্ন রকম কারিগরি প্রশিক্ষণ দিতে হবে। তাহলে ওরা নিজেরাই স্বাবলম্বী হবে।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: জঙ্গি দমনে কী রকম পদক্ষেপ নিবেন?

সহিদুল ইসলাম সেবু: জঙ্গি সমস্যা একটা মারাত্মক সমস্যা। জঙ্গি মূলত বেকার-হতাশাগ্রস্ত যুবকদের মাঝ থেকেই তৈরি হচ্ছে। স্কুল-কলেজে জঙ্গি বিরোধী প্রচার প্রচারণা, পাশাপাশি মসজিদ-মাদ্রাসায় সচেতনতা বৃদ্ধির ব্যাপারে প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবো।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পৌরবাসীর নাগরিক সুবিধা কী রকম দিবেন?

সহিদুল ইসলাম সেবু: আমাদের সবচেয়ে যেটা বড় সমস্যা সেটা হচ্ছে রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন এখানে হয়নি। প্রথমত রাস্তা-ঘাটের উন্নয়ন করতে হবে। জলাবদ্ধতা দূরীকরণের জন্য ড্রেনেজ সিস্টেম চালু করবো।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: আপনি তো নিজেই একজন শিক্ষক, তো শিক্ষা উন্নয়নে আপনার কী রকম পরিকল্পনা আছে?

সহিদুল ইসলাম সেবু: প্রতিটা গ্রামে একটা করে স্কুল গড়বো। প্রাথমিক শিক্ষাটাকে বাধ্যতামূলক হিসেবে সব বাচ্চাদের গ্রহণ করতেই হবে।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পীরগঞ্জ তো নতুন পৌরসভা হচ্ছে, এখনো অবকাঠামো গড়ে ওঠেনি, এতে কী রকম সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন? এব্যাপারে আপনার কী কী করণীয়….

সহিদুল ইসলাম সেবু: সমস্যা হলে মূলত কর এর ব্যাপারেই হবে। আসলে কর কী জিনিস আমাদের পীরগঞ্জের লোক এখনো ভালোভাবে বুঝে উঠতে পারেনি। আমাদের পীরগঞ্জের বেশিরভাগ লোক কৃষি কাজের উপর নির্ভরশীল। কৃষি কাজের উপর যেন বেশি করে কর নির্ধারণ না করা হয় এব্যাপারে আমি পদক্ষেপ নিবো।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পৌর মেয়র নির্বাচিত হলে পীরগঞ্জকে জেলা উন্নীত হওয়ার ব্যাপারে কী রকম পদক্ষেপ নিবেন?

সহিদুল ইসলাম সেবু: মূলত পীরগঞ্জ জেলা হওয়ার সম্পূর্ণ ব্যাপারটা সরকারের উপর নির্ভরশীল। পীরগঞ্জ জেলা হোক এটা আমিও চাই, এব্যাপারে যদি কোন আন্দোলন গড়ে তোলা লাগে তো সবার আগে আমি অন্তরীন হয়ে যাবো এব্যাপারে।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: আপনি তো নমিনেশন নিয়েছেন বিরোধী দল থেকে। নির্বাচিত হলে সরকার দলীয় কোনরকম প্রভাব পড়বে কিনা?

সহিদুল ইসলাম সেবু: আমি মনে করিনা সরকার দলীয় কোন রকম প্রভাব পড়বে। কারণ এখানে বরাবরই বিরোধী দলের চেয়ারম্যান, এমপি নির্বাচিত হয়েছিল। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও দেখা গিয়েছে যে সব সময় বিরোধী দলই বেশি ভূমিকা রেখেছে। উন্নয়নটা মূলত নির্ভর করে ব্যক্তি বিশেষের উপর। সৎ ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করা যায় তাহলে উন্নয়নের ক্ষেত্রে কোন বাধা থাকবেনা।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পৌরবাসীর উদ্দেশ্যে আপনার কিছু বক্তব্য…

সহিদুল ইসলাম সেবু: পৌরবাসীর উদ্দেশ্যে আমি বলতে চাই, আগামী ৭ আগস্ট যে নির্বাচন হবে সবাই যেন স্বত্বস্ফূর্তভাবে সেই নির্বাচনে অংশ নেয়। নির্বাচনে কোন প্রকার যেন সহিংসতা না ঘটে সেব্যাপারে তাদের প্রতি সজাগ থাকার অনুরোধ রইল।

{সাক্ষাৎকারে প্রার্থীর বক্তব্য একান্তই নিজস্ব। তাই এখানে প্রকাশিত সাক্ষাৎকারে প্রার্থীর বক্তব্যের জন্য পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ প্রার্থীর বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে আইনগত বা অন্য কোনও ধরনের কোনও দায় নেবে না।}

***পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।***

Content Protection by DMCA.com
- বিজ্ঞাপন -
- বিজ্ঞাপন -

সর্বশেষ

আরো খবর

- বিজ্ঞাপন -