- বিজ্ঞাপন -
28.8 C
Pirganj
হোমসমগ্র পীরগঞ্জনিকটতম প্রতিদ্বন্দী আমি কাউকেই মনে করিনা - তাজিমুল ইসলাম শামীম

নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আমি কাউকেই মনে করিনা – তাজিমুল ইসলাম শামীম

- বিজ্ঞাপন -

আজ ৭ আগস্ট নবগঠিত পীরগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এতে মেয়র পদে লড়ছেন ৪ জন প্রার্থী। মেয়র ও কাউন্সিলর পদ প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণা, জনসংযোগে এই কয়দিন বেশ ব্যস্ত ছিলেন। এই ব্যস্ততার মাঝেও আমরা চেষ্টা করেছি তাদের প্রত্যেকের সাক্ষাৎকার নেওয়ার। যারা এই শত ব্যস্ততার মাঝেও আমাদের টিমকে সময় দিতে পেরেছেন তাদের প্রত্যেকের সাক্ষাৎকার আজ সারাদিন ছাপা হচ্ছে আমাদের নিউজ পোর্টালে।

আ’লীগ মনোনীত উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাসুর পুত্র মো. তাজিমুল ইসলাম শামীম নৌকা প্রতীকে লড়ছেন, পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর টিমকে দেওয়া তাঁর সাক্ষাৎকারটি প্রকাশ করা হল।

প্রার্থীর সংক্ষিপ্ত পরিচয়:

boat
ছবি: নৌকা

প্রার্থীর পূর্ণ নাম – আবু ছালেহ মো. তাজিমুল ইসলাম (শামীম)
পিতার নাম – মরহুম আলহাজ্ব আব্দুল খালেক মিয়া
মাতার নাম – মোছা. জোহরা খালেক
জন্ম তারিখ – ২৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৮ খ্রি.
ঠিকানা – ওয়ার্ড: প্রজাপাড়া, ডাকঘর: পীরগঞ্জ
শিক্ষাগত যোগ্যতা – M.A (Private University), LL.B.
পেশা – ব্যবসা
যে ওয়ার্ডের বাসিন্দা – ০২
নির্বাচনী প্রতীক– নৌকা

পীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের সকল খবর পড়ুন

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: আপনার নির্বাচনে দাড়ানোর উদ্দেশ্য কী?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: অনেক নির্বাচনেই আসছি তবে পৌরসভা নির্বাচনে দাড়ানোর উদ্দেশ্য হল আমার হোম উপজেলা, হোম ইউনিয়নে ভালো কিছু করার এবং আমার যেটা পরিকল্পনা আছে একটা মডেল পৌরসভা উপহার দেওয়া। পৌরসভার মধ্যে সমস্ত রাস্তা-ঘাট পাকা থাকবে। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন পৌরসভা হবে। আলোকিত পৌরসভা করার আমার পরিকল্পনা আছে। আমি যেহেতু রাজনীতি করি সেহেতু আমি সেবক হয়ে জনগণের মাঝে কাজ করতে চাই; এইসব উদ্দেশ্যের কারণেই আমার নির্বাচন করা।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: নির্বাচিত হলে এলাকার উন্নয়নে কী কী করবেন?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: আমি ১২টা গ্রামের মধ্যে ১১টা গ্রামের সব জায়গায় গিয়েছি, দেখেছি মূল রাস্তা ছাড়া প্রতিটা গ্রামের সব রাস্তা কাঁচা। আমি মেয়র হলে প্রথম এই কাঁচা রাস্তাগুলো পাকা করবো। শুধু পাকাই নয় রাস্তার দুইপাশ দিয়ে পানি নিষ্কাশনের সুব্যবস্থা থাকবে এবং আমি চেষ্টা করবো একটা আলোকিত পৌরসভা উপহার দিতে। প্রতিটা রাস্তায় সোডিয়াম বাল্ব দিয়ে সাধারণ জনগণের চলাফেরার সুবিধা হয় সে ব্যবস্থা করবো, পীরগঞ্জে অবস্থিত একমাত্র কাঁচা বাজারটিকে সংস্কার করে আধুনিক মডেল বাজারে রূপান্তরিত করবো, চিকিৎসাসেবা এবং আধুনিক শিক্ষার উন্নয়নসহ যা যা করা সম্ভব তার সবই করবো।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: কী রকম সাড়া পেলেন জনগণের কাছ থেকে?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: আমি স্বতঃস্ফূর্তভাবে সর্বমহল থেকে জনগণের সাড়া পেয়েছি। সাধারণ মানুষ বুঝতে শিখেছে যে উন্নয়নের জন্য আমাদের নৌকা মার্কায় ভোট দিতে হবে। যেহেতু নবগঠিত পীরগঞ্জ পৌরসভা জননেত্রী শেখ হাসিনা দিয়েছে, আমরা যদি আমাদের মূল্যবান ভোটটা নৌকা মার্কায় দিয়ে নৌকা মার্কাকে জেতাতে পারি তাহলে আমরা একজন জনপ্রতিনিধি ব্যক্তি জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতে উঠায়ে দিতে পারলাম এবং যার পরিপ্রেক্ষিতে আমরা আমাদের দাবিগুলো আদায় করতে পারবো।

নির্বাচনী প্রচারণায় তাজিমুল ইসলাম শামীম
নির্বাচনী প্রচারণায় ডান থেকে এটিএন বাংলার সিনিয়র রিপোর্টার কেরামত উল্লাহ বিপ্লব, আ’লীগ মনোনীত মেয়র পদ প্রার্থী তাজিমুল ইসলাম শামীম এবং বিএনপি মনোনীত মেয়র পদ প্রার্থী সহিদুল ইসলাম সেবু, ছবি: কেরামত উল্লাহ বিপ্লব

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পীরগঞ্জ পৌরসভাকে ডিজিটালাইজড করতে কী রকম পদক্ষেপ নিবেন?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: আমার পীরগঞ্জকে ডিজিটাল পৌরসভা করার পরিকল্পনা আছে। ইতোমধ্যে আমাদের তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক ভাইয়ের সাথেও কথা হয়েছে উনি আশ্বস্ত করেছেন এবং বলেছেন যে ভাই আপনি নৌকা জিতিয়ে নিয়ে আসেন ডিজিটাল পৌরসভা করার সব ব্যবস্থা আমি করবো। পীরগঞ্জ পৌরসভাকে ফ্রি ওয়াই-ফাই জোনের আওতায় আনার পরিকল্পনা ইতোমধ্যে গ্রহণ করা হয়েছে।

নির্বাচনী প্রচারণায় স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নিয়েছেন নারীরাও
নির্বাচনী প্রচারণায় স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নিয়েছেন নারীরাও

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পৌর কর কিভাবে নির্ণয় করবেন?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: নিয়ম নীতিমালা মোতাবেক কর নির্ণয় হবে তবে পৌরবাসীর সুবিধার্তে যতটা সহনীয় করা যায় করবো। ট্যাক্স মওকুফ করারও যদি কোন সুযোগ থাকে তবে সেটা পৌরবাসীর জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে ব্যবস্থা নিবো।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: বেকার সমস্যা সমাধানে কী পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: বেকারত্ব যুব সমাজের জন্য একটা অভিশাপ হিসেবে পরিণত হয়েছে। এব্যাপারে আমারও একটা পরিকল্পনা আছে। পৌরসভায় কারিগরি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে যুব সমাজের বেকারত্ব দূর করার চেষ্টা করবো। শুধু বেকার যুবক না যুবতীদেরও, সঙ্গে অনেক গৃহিণীরা আছেন তাদের জন্য আমি সেলাই প্রশিক্ষণ এবং অন্যান্য প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তাদের নিজেদেরকে স্বাবলম্বী করে গড়ে তুলতে পারে, পরিবারে স্বচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে পারে সেরকম ব্যবস্থা নিবো। আমাদের স্পিকার মহোদয়ের সঙ্গেও কথা হয়েছে যে শামীম তুমি বলো, পদক্ষেপ নাও, আমার সহযোগিতা থাকবে।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: সাম্প্রদায়িক সহিংসতা এড়াতে কী রকম পদক্ষেপ নিবেন?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: আসলে আমাদের উপজেলা এবং নবগঠিত পৌরসভা একটা শান্তিপ্রিয় এলাকা। ইতোপূর্বে এমন কোন সমস্যা দেখা দেয়নি, আশা করি ভবিষ্যতে দেখা দিবেও না। সম্প্রীতি বজায় রেখে এতোদিন ধরে চলে আসছি তারপরেও যদি এমন কোন সমস্যা হয় অবশ্যই আমি সম্প্রীতি বজায় রেখে সবার সাথে আলোচনার মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: জঙ্গি দমনে কী রকম পদক্ষেপ নিবেন?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: জঙ্গি দমনের কার্যক্রম অব্যাহত আছে। আসলে সর্বস্তরের জনগণকে সঙ্গে নিয়েই এসব মোকাবিলাগুলো করতে হয়। যেমন আমাদের পীরগঞ্জ এখন প্রায় বাল্য বিবাহ, শিশু বিবাহ মুক্ত। জঙ্গির বিষয়টাতে যেভাবে উপজেলা প্রশাসন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ছাত্র-ছাত্রীদেরকে সচেতনতা বৃদ্ধিতে সভা-সেমিনার, মানববন্ধন করতেছে সেভাবে আমিও সর্বমহলের সহযোগিতায় প্রচার প্রচারণার মধ্য দিয়ে আলোচনা করে এটা প্রতিহত করার অবশ্যই চেষ্টা করবো। আমাদের বাংলাদেশ শান্তিপ্রিয় দেশ, এদেশে এধরণের ঘটনাগুলো আমাদের জন্য আসলেই ব্যথাদায়ক। গুলশানের হলি আর্টিজানে যে নারকীয় কান্ড ঘটে গেছে, শোলাকিয়ায় ঈদগাহ্ মাঠে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরে যা ঘটেছে তা বাঙালিদের মনে ব্যথা দিয়েছে। আমাদের জন্য এসব ঘটনা কোনভাবেই কাম্য নয়। সরকার যেভাবে জঙ্গি নির্মূলে প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছে সরকারকে সেজন্য ধন্যবাদ জানাই। সচেতনতা বৃদ্ধির মাধ্যমেই জঙ্গি নির্মূল সম্ভব।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পৌরবাসীর নাগরিক সুবিধা কী রকম দিবেন?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: নতুন পৌরসভা হিসেবে সব ধরণের নাগরিক সুবিধাই থাকবে। হয়তোবা এটা বুঝাতে এবং উপভোগ করতে কিছুট হলেও সময় লাগবে।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: শিক্ষা উন্নয়নে আপনার কী রকম পরিকল্পনা আছে?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: শিক্ষার ব্যাপারে সরকারের যথেষ্ট গুরুত্ব আছে এবং আমার নিজেরও অনেক পরিকল্পনা আছে। পৌরসভার অধীনে গরীব মানুষের সন্তানদের লেখাপড়া করার জন্য দুটি প্রাথমিক বিদ্যালয় স্থাপন করা হবে যার ব্যয়ভার পৌরসভা বহন করবে। পৌরসভার অন্তর্গত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি আরো আর্থিক অনুদানের মাধ্যমে শিক্ষার মানোন্নয়নে পরিকল্পনা ও পর্যবেক্ষণ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পীরগঞ্জ তো নতুন পৌরসভা হচ্ছে, এখনো অবকাঠামো গড়ে ওঠেনি, এতে কী রকম সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন? এব্যাপারে আপনার কী কী করণীয়….

তাজিমুল ইসলাম শামীম: এখনো তো মেয়র হয়নি, জনগণের দোয়া ও সমর্থনে যদি নির্বাচিত হই তখন দেখা যাবে। যেভাবে পৌরবাসী সহযোগিতার হাত বাড়াচ্ছে, যে পরিমাণ উৎসাহ উদ্দীপনা আমি সাধারণ জনগণের মাঝে পাচ্ছি তাতে মনে হয়না তেমন সমস্যার মুখোমুখি হবো। আর হলেও সেটা দ্রুত কাটিয়ে উঠতে পারবো।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: দুর্নীতি দমনে কী রকম ভূমিকা রাখবেন?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: সর্বক্ষেত্রেই দুর্নীতি, পীরগঞ্জবাসীকে দুর্নীতিমুক্ত পৌরসভা উপহার দেওয়ার জন্য আমি সর্বাত্মক চেষ্টা করবো। আমরা ভাগ্যবান পীরগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেছি বলে, শুধু আমাদের রংপুর বিভাগের লোকজনই না আমার মনে হয় দেশ তাকিয়ে থাকে পীরগঞ্জে কি হচ্ছে তা জানার জন্য। যেহেতু দুর্নীতি মানুষের শিরা উপশিরায় ঢুকে গেছে একটু সময় লাগবে তা থেকে মুক্তি পেতে। যেসব ক্ষেত্রে দুর্নীতি হচ্ছে সেসব চিহ্নিত করে দূর করার আপ্রাণ চেষ্টা করবো এটা আমার প্রতিজ্ঞা রইল। একটা মডেল পৌরসভা উপহার দেওয়ার জন্য আমি দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: নিকটতম প্রতিদ্বন্দী কাকে মনে করছেন?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: আসলে নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আমি কাউকেই মনে করিনা। কারণ পীরগঞ্জে পৌরসভা আমাদের বধুমাতা জননেত্রী শেখ হাসিনা দিয়েছেন আর দলীয়ভাবে নমিনেশন আমাকেই দেওয়া হয়েছে। সেজন্য আমি মনে করিনা কেউ আমার নিকটতম প্রতিদ্বন্দী এবং পৌরবাসীও সেভাবে বিষয়টাকে গুরুত্ব দেয়না।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: আপনার দল তো এখন ক্ষমতায় এজন্য পীরগঞ্জ পৌরসভা উন্নয়নে ভিন্ন কোন পরিকল্পনা আছে কি?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: হ্যাঁ অবশ্যই। আমি ২০টির মতো নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি দিয়েছি যা আমার নির্বাচনী ইস্তেহারে উল্লেখ করা আছে। অবশ্যই সরকার ক্ষমতায় আছে বলেই আমি এতোগুলো প্রতিশ্রুতি দিতে পারছি। আমার বিশ্বাস আল্লাহর রহমতে আমি সবগুলো প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়িত করবো। সবক্ষেত্রে হয়তোবা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে লাগবেনা। এলজিইডি মন্ত্রী মহোদয় মোশাররফ হোসেন উনি আমার তাওয়াই হোন। আমার ছোটবোন কাজিন পুতুলের শ্বশুড় উনি আমাকে অত্যন্ত স্নেহ করেন। উনি আছেন বিধায় রাস্তা সংক্রান্ত বড় বড় কাজগুলোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পীরগঞ্জবাসী যদি আমাকে নির্বাচিত করে তবে আমি নিজেকে পীরগঞ্জের মেয়র হিসেবে মনে করবোনা, নিজেকে পীরগঞ্জ পৌরবাসীর সেবক হিসেবে পাশে থেকে জনগণের উন্নয়নে কাজগুলো করে যাবো।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পৌর মেয়র নির্বাচিত হলে পীরগঞ্জকে জেলা উন্নীত হওয়ার ব্যাপারে কী রকম পদক্ষেপ নিবেন?

তাজিমুল ইসলাম শামীম: জেলা হওয়ার জন্য সীমানা নির্ধারণের কাজ চলছে। তবে এটা আরো যত তাড়াতাড়ি করা যায় সে চেষ্টা চালিয়ে যাবো।

পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর: পৌরবাসীর উদ্দেশ্যে আপনার কিছু বক্তব্য…

তাজিমুল ইসলাম শামীম: আমি ধন্যবাদ জানাবো সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সফল প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে পীরগঞ্জ পৌরসভা দেওয়ার জন্য এবং দলীয়ভাবে আমাকে নৌকা মার্কা নিয়ে নমিনেশন দেওয়ার জন্য অন্তরের অন্তস্থল থেকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। পৌরবাসীর কাছে আমার অনুরোধ আমাদের পীরগঞ্জের বধূমাতা জননেত্রী শেখ হাসিনা আজকে উপহার স্বরুপ পীরগঞ্জ পৌরসভা দিয়েছেন, এবং এই নবগঠিত পৌরসভার অফুরন্ত কাজ যেন এই কাজগুলো ত্বরান্বিত হয় সে জন্য আমি পৌরবাসীর সহযোগিতা, দোয়া এবং নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার জন্য আমি বিনীত অনুরোধ করবো।

{সাক্ষাৎকারে প্রার্থীর বক্তব্য একান্তই নিজস্ব। তাই এখানে প্রকাশিত সাক্ষাৎকারে প্রার্থীর বক্তব্যের জন্য পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ প্রার্থীর বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে আইনগত বা অন্য কোনও ধরনের কোনও দায় নেবে না।}

***পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।***

Content Protection by DMCA.com
- বিজ্ঞাপন -
- বিজ্ঞাপন -

সর্বশেষ

আরো খবর

- বিজ্ঞাপন -