পুলিশের বাধায় পণ্ড বিএনপির কালো পতাকা প্রদর্শন কর্মসূচি

পুলিশের বাধায় পণ্ড হয়ে গেছে বিএনপির আজকের কালো পতাকা প্রদর্শনের কর্মসূচি। বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এ কর্মসূচি শুরু হলে নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করতে জলকামান ব্যবহার করে পুলিশ। এসময় বিএনপির নেতা সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ অন্তত ২০ জন নেতা-কর্মীকে আটক করা হয়।

দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার বিএনপি ঢাকায় সমাবেশ করার অনুমতি চেয়েছিল। কিন্তু এই অনুমতি না পাওয়ার প্রতিবাদে আজ শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাকায় কালো পতাকা প্রদর্শন কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছিলো দলটি।

দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আজ বেলা ১১টায় এই কর্মসূচি শুরু হওয়ার কথা থাকলেও কিছু নেতাকর্মী সকাল সোয়া ১০টার দিকে জড় হয়ে কালো পতাকা প্রদর্শন করে। খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এ সময় তারা নানা স্লোগানও দেয়। হঠাৎ করেই পুলিশ জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের নেতা-কর্মীদের ওপর চড়াও হয়।

পুলিশ সেখান থেকে ১০ নেতা-কর্মীকে আটক করে। পরে নেতাকর্মীরা কার্যালয়ের বাইরে অবস্থানের চেষ্টা করলে পুলিশ নেতা-কর্মীদের ওপর জলকামান থেকে পানি ছোড়ে। কেন্দ্রীয় নেতারা তাদের ধাওয়ায় কার্যালয়ের ভেতর ঢুকে পড়েন।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন ঘটনায় আহত হলে তাকে একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এছাড়াও গয়েশ্বর রায়ের পুত্রবধূ বিএনপি নেতা নিপুণ রায় চৌধুরী পুলিশের বাধায় ধাওয়ার সময় হুড়োহুড়ির মধ্যে পড়ে আহত হয়েছেন।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী সাংবাদিকদের বলেন, এভাবে পুলিশের বাধায় সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ একটা কর্মসূচি ভন্ডুল সরকারের কোন ধরনের আচরণ? জলকামান দিয়ে পানি ছিটানো, লাঠিপেটা, নির্বিচারে গ্রেপ্তার কোনো সভ্য গণতান্ত্রিক দেশের আচরণ হতে পারে না।’

আরও পড়তে পারেন: কবি হেয়াত মামুদের রচনাশৈলী বাঙালির মনের কথা

***পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।***

Content Protection by DMCA.com

আরও পড়ুন...