রোহিঙ্গাদের ত্রাণ সহায়তা দিতে কক্সবাজার যাচ্ছেন খালেদা জিয়া

মিয়ানমার থেকে প্রাণভয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ত্রাণ সহায়তা দিতে শনিবার (২৮ অক্টোবর) কক্সবাজার যাচ্ছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বিশেষ নেত্রীবৃন্দসহ সকালে সড়ক পথে চট্টগ্রাম হয়ে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়বেন তিনি। প্রায় ২ বছর পরে বেগম জিয়া ঢাকার বাহিরে এ সফর করছেন।

রোহিঙ্গাদের মাঝে তিনি যেসব ত্রাণ দেবেন, তার মধ্যে শিশুখাদ্য, চাল ও বস্ত্র রয়েছে। বিএনপির ত্রাণ কমিটির দায়িত্বশীলরা জানান, রোহিঙ্গা শিশুদের মধ্যে বিতরণের জন্য প্রায় ১০ হাজার শিশুখাদ্যের প্যাকেট তৈরি করা হয়েছে। এই শিশুখাদ্য গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র তৈরি করেছে।

জানা যায়, দলীয় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলামের সভাপতিত্বে কয়েকদিন আগে রোহিঙ্গাদের ত্রাণ সহায়তা বিষয়ে একটি পর্যালোচনা বিষয়ক বৈঠক হয়। ওই বৈঠকেই চাল, শিশুখাদ্য ও বস্ত্র দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এ মাসে মহাসচিব নিজেই রোহিঙ্গাদের অবস্থা দেখতে উখিয়ায় গিয়েছিলেন।

বিএনপির চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব এবিএম আব্দুস সাত্তার জানান, ‘আজ বেগম খালেদা জিয়া ঢাকা থেকে কক্সবাজারের উদ্দেশে রওয়ানা হবেন।’ পথে তার নির্বাচনি জেলা ফেনীর সার্কিট হাউজে দুপুরের খাবার ও নামাজের বিরতি দেবেন। এরপর বিকালে চট্টগ্রামের উদ্দেশে রওয়ানা হবেন। পরে চট্টগ্রাম নগরীর সার্কিট হাউজে রাত্রিযাপন করবেন। পরদিন সকালে কক্সবাজারের উদ্দেশে রওয়ানা হয়ে ওইদিন জেলা সার্কিট হাউজে বিশ্রাম নেবেন। আগামী ৩০ অক্টোবর সোমবার উখিয়ায় চারটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ত্রাণ বিতরণ করবেন। স্থানগুলো হলো— বালুখালী-১, বালুখালী-২, হাকিমপাড়া ও ময়নারগুনা। এদিন সকাল ১১ টা থেকে দুপুর দুইটা পর্যন্ত তিনি সেখানে থাকবেন। ৩১শে অক্টোবর ঢাকার উদ্দেশ্যো রওয়ানা হবেন।

আরও পড়তে পারেন: পীরগঞ্জে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালিত

প্রায় পাঁচ বছর পর চট্টগ্রাম অঞ্চলে যাচ্ছেন খালেদা জিয়া। তার সফরকে ঘিরে দেশের পূর্বাঞ্চালের ১০ জেলায় কয়েকলাখ নেতাকর্মী ও সমর্থকেরা নেত্রীকে অভ্যর্থনা জানাতে পথে পথে তোরণ, ব্যানার, ফেস্টুুন দিয়ে সাজিয়ে রেখেছেন প্রায় ৪শ’ কিলোমিটার সড়ক পথ। তার সফরসঙ্গী হিসেবে থাকবেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ স্থায়ী কমিটি, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির একটি বিশাল বহর।

এই চারদিনের সফরে মাত্র কয়েক ঘণ্টা রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করবেন খালেদা জিয়া। বাকি সময়টুকু বিশ্রাম, যাত্রাপথ ও নেতাকর্মীদের সঙ্গে সাক্ষাতে কাটবে তার। দলীয় সূত্রগুলো বলছে, আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে খালেদা জিয়ার নির্বাচনি প্রচারণা এটি। ইতোমধ্যে বিভাগের জেলায়-জেলায় ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

—বাংলাদেশ সময়: সকাল ১১:০১, ২৮ আগস্ট, ২০১৭

***পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।***

আরও পড়ুন...