ইন্টারনেটের ভ্যাট প্রত্যাহারের আশ্বাস দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী

বিজ্ঞাপন

ইন্টারনেটের ভ্যাট প্রত্যাহারের আশ্বাস দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের দাবির প্রেক্ষিতে আবুল মাল আবদুল মুহিত এই আশ্বাস দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার বেসিস সফটএক্সপোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা হয়।

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন- বাংলাদেশের মানুষের একটা প্রত্যাশা আছে আপনার কাছে। আপনি বলেছেন, এ বছরই ডিসেম্বরে আপনি অবসর নেবেন। অর্থাৎ ২০১৮-২০১৯ সালের বাজেটই হচ্ছে আপনার শেষ বাজেট। এই বাজেটে ইন্টারনেটের উপর থেকে ১৫ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার করে নেন। এটা আপনার কাছে আমাদের প্রত্যাশা। বাংলাদেশে তথ্য প্রযুক্তি খাতের উন্নয়নে আপনার সহায়তা অনেক, আমরা সেই ঋণ শোধ করতে পারবো না। এই ১৫ শতাংশ ভ্যাট তুলে নিলে বাংলাদেশের ইন্টারনেটের মূল্য কমে আসবে। বাংলাদেশের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা সারাজীবন আপনার কাছে ঋণী হয়ে থাকবে। ইন্টারনেটের ভ্যাট প্রত্যাহারের পাশাপাশি ফোরজি সিম প্রতিস্থাপন করতে কর না নিতে অর্থমন্ত্রীকে অনুরোধ করেন।

বিজ্ঞাপন

মোস্তাফা জব্বার অর্থমন্ত্রীকে আরও বলেন- কত টাকা লোকসান হবে সেটা এনবিআর হিসাব করে দেখাবে। কিন্তু আপনার যদি একশ কোটি টাকা রাজস্ব কমও হয় তারপরেও প্রতিদান পাবেন হাজার কোটিরও বেশি টাকা।

মোস্তাফা জব্বারের প্রস্তাবের উত্তরে অর্থমন্ত্রী বলেন- আপনারা আপনাদের প্রয়োজন জানিয়েছেন। আমি এই ব্যাপারে একটি ইতিবাচক সিদ্ধান্ত দেওয়ার ইচ্ছা ও আশা করছি। সুতরাং এদিক থেকে দিয়ে আপনাদের অসন্তুষ্ট হওয়ার কোনো কারণ নেই।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আরও বলেন- ‘বিশ্বের উন্নত দেশের মতো আমাদের দেশে আইসিটি নিয়ে কাজ করার বিশেষ কোনো শহর নেই। যেখানে যুবকরা বিনামূল্যে ওয়াইফাই ব্যবহার করবে। এ ধরনের একটি শহর তৈরি করা যায় কি না তা বিবেচনা করা দরকার মনে করি।’

‘গত ২০ বছরে আমরা তথ্যপ্রযুক্তি খাতে অনেক এগিয়েছি। আমাদের আরও এগিয়ে যেতে হবে। দেশের সফটওয়্যার রপ্তানি বাড়ছে। আশা করছি নির্দিষ্ট সময়ের আগে আমরা ১০০ কোটি ডলার সফটওয়্যার রফতানির লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছাবো।’

আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুর ১২টার দিকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি)-এ মেলার উদ্বোধন করেছেন দুই মন্ত্রী। এছাড়াও বেসিসের সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর ও  বেসিস পরিচালক মেলার আহ্বায়ক  মোস্তাফিজুর রহমান সোহেল বক্তব্য রাখেন।

২০১৮ সালের এই মেলা চলবে আগামী রোববার পর্যন্ত। মেলাটি ডিজাইনিং দ্য ফিউচার ২০১৮ স্লোগানে চলবে। এই মেলাকে পাঁচটি সেক্টরে ভাগ করা হয়েছে। মেলায় ৩০টির বেশি সেমিনার হবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে চলবে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে।

আরও পড়তে পারেন: মশার উৎপাতের কারণে উড়োজাহাজ ছাড়তে ২ ঘণ্টা দেরি!

বিজ্ঞাপন

***পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।***

Content Protection by DMCA.com