শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ জয়ের নায়ককে ডেকে পাঠাল পুলিশ

কদিন আগে শ্রীলঙ্কার সাবেক ক্রীড়া মন্ত্রী মাহিন্দানন্দ আলুথগামাগে, অভিযোগ করেন, ‘২০১১ বিশ্বকাপ আমরা বিক্রি করে দিয়েছিলাম’। ২০১১ বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কার হেরে যাওয়া ম্যাচটি পাতানো ছিল, এমনটাই বলতে চেয়েছেন তিনি। আলুথগামাগের অভিযোগের পরই সেই সময়ের শ্রীলঙ্কা দলের প্রধান নির্বাচক অরবিন্দ ডি সিলভা বলেন, বিষয়টি তদন্ত করা হোক। ক্রিকেটের স্বার্থে এবং শচীন টেন্ডুলকারের একমাত্র বিশ্বকাপ জয়ের মহিমাকে অক্ষুণ্ন রাখতে বিষয়টি খতিয়ে দেখা দরকার বলে জানিয়েছিলেন ডি সিলভা। শ্রীলঙ্কান পুলিশ ডি সিলভার আহ্বানেই সাড়া দিয়ে তদন্তে নেমেছে। তবে তদন্তের শুরুটা করছে শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ জয়ের নায়ককে সেই ডি সিলভাকে দিয়েই। শ্রীলঙ্কাকে ১৯৯৬ বিশ্বকাপ জেতাতে যার ছিল বড় ভূমিকা। তাঁকে ডেকে পাঠিয়েছে শ্রীলঙ্কার পুলিশের বিশেষ তদন্ত বিভাগ। শ্রীলঙ্কার পত্রিকা ডেইলি মিরর খবরটি দিয়েছে।

বিশেষ তদন্ত বিভাগ থেকে জানানো হয়, প্রথমে ডি সিলভার বক্তব্য নেওয়া হবে। তবে ২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনাল পাতানো ছিল বলে আলুথগামাগে অনেক আগেই আইসিসিতে অভিযোগ করেছিলেন। তিনি শ্রীলঙ্কান পুলিশকে সম্প্রতি একটি অনুলিপি দিয়েছেন। পুলিশ সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই কাজ শুরু করেছে।

২০১১ সালের বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচটিতে প্রথমে শ্রীলঙ্কা ব্যাট করে ২৭৪ রান করেছিল ৬ উইকেটে। ভারত ২৭৫ রান তাড়া করতে নেমে আরো ১০ বল হাতে রেখে ৬ উইকেটের বড় জয় তুলে ভারত। গৌতম গম্ভীর করেছিল ৯৭ রান। যা ভারতের সর্বোচ্চ ইনিংস। পরে ৯১ রান করে অপরাজিত ছিলেন অধিনায়ক ধোনি।

কুমার সাঙ্গাকারা ছিল শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক। আলুথগামাগের অভিযোগের পর সাঙ্গাকারা টুইট করে তাঁকে প্রমাণ দিতে বলেছেন, ‌তার ভাষ্য মতে, ‘যাতে এই অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্ত করা যায় তাই আলুথগামাগে কে অবশ্যই আইসিসি এবং দুর্নীতি-বিরোধী ও নিরাপত্তা ইউনিটকে অভিযোগের প্রমাণ দিতে হবে’।

***পীরগঞ্জ টোয়েন্টিফোরে প্রকাশিত কোনও সংবাদ, কলাম, তথ্য, ছবি, কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার দণ্ডনীয় অপরাধ। অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করলে কর্তৃপক্ষ আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।***

Content Protection by DMCA.com